১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ


চাটখিলে জোড়া লাগানো শিশু নিয়ে বিপাকে বাবা-মা

Made with LogoLicious Add Your Logo App

মো: রুবেল: চাটখিল উপজেলার বদলকোট ইউনিয়নের উত্তর বদলকোট গ্রামের মাহবুবুর রহমানের মেয়ে আফরোজা সুলতানা মেঘলা জোড়া লাগানো দু’কন্যা শিশুর জন্ম দিয়ে বিপাকে পড়েছে। ২৬ জানুয়ারী ঢাকার একটি বে-সরকারী হাসপাতালে ছোট অপারেশনের মাধ্যমে জোড়া লাগানো ২ টি জমজ কন্যা শিশুর জন্ম হয়। শিশু ২ টির নাম রাখা হয় মাইমুনা ও মরিয়ম। মেঘলার মা ফাতেমা আক্তার জানান, ১০ মাস আগে ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলার শাহানুর ইসলামের সাথে তার মেয়ের বিয়ে হয়। শাহনুর মুন্সিগঞ্জের বাটার চর এলাকায় একটি কাপড় মিলে দিন মজুরের কাজ করে। হত দরিদ্র পরিবারের পক্ষে জোড়া লাগানো শিশু মাইমুনা ও মরিয়মের চিকিৎসা করা সম্ভব হচ্ছে না। জন্মের পর শিশু ২ টিকে নোয়াখালীর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ডাক্তাররা তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে টাকার অভাবে জোড়া লাগানো শিশুদেরকে ঢাকায় নেয়া যাচ্ছে না। তারা বর্তমানে চাটখিলে বদলকোট গ্রামে নানার বাড়িতে রয়েছে। মাইমুনা ও মরিয়মের পেট ও বুকের অংশ জোড়া লাগানো। মাথা ও মুখ আলাদা। খাদ্য গ্রহনে কোন অসুবিধা হচ্ছে না। দেশে এর আগেও জোড়া লাগানো জমজ শিশুর জন্ম হয়েছিল। অপারেশনের মাধ্যমে তাদেরকে আলাদা করা সম্ভব হয়েছে। হত দরিদ্র দিন মজুর পিতা শাহানুর ইসলাম ও মাতা আফরোজা সুলতানা মেঘলার আশা তাদের কন্যাদের চিকিৎসার ব্যাপারে চিত্ত বানরা এগিয়ে আসবেন।

ফেইসবুকে চাটখিল নিউজ ২৪ ডট কম


Shares